যেসব ব্যক্তিগত জিনিস কারও সঙ্গে শেয়ার করা ঠিক না

9

ব্যক্তিগত সুখ-দুঃখের মতো আমরা আরও অনেক কিছু অন্যের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিই। কিন্তু সুস্বাস্থ্যের জন্য নির্দিষ্ট কিছু জিনিস অন্যের সঙ্গে শেয়ার করা ঠিক নয়। যেমন নখ কাটার যন্ত্র। আমরা খালি চোখে না দেখলেও হাতে এবং নখে অনেক ব্যকটেরিয়া, ভাইরাস থাকে। অন্যের নখ কাটার যন্ত্র ব্যবহার করলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ে।

কানের দুল: কানে বহু রক্তনালী আছে। অন্যের কানের দুল ব্যবহারের কারণে আপনি তাই সহজেই রক্তবাহিত রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। কারও কানের দুল পরতে চাইলে সেটি জীবানুমুক্ত করে নিন। লিপবাম: ঠোঁটের  নিচেও রক্তনালী আছে। আপনি ঠোঁটের উপর কী লাগাচ্ছেন সেটি তারা রক্তের প্রবাহে নিয়ে যেতে প্রস্তুত- এমনকি জীবানুও। লিপবাম কিংবা লিপিস্টিক শেয়ারের কারণে ভাইরাস স্থানান্তরিত হতে পারে।

ডিওডোরেন্টস: ঘামের দুর্গন্ধ দূর করতে ব্যবহৃত ডিওডোরেন্টও গুরুতর সংক্রমণ বহন করতে পারে। সবসময় জীবানুরোধী উপাদান যুক্ত ডিওরোন্ট ব্যবহার করা উচিত এবং তা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও শেয়ার করা থেকে দূরে থাকুন।

সাবান: প্রত্যেকবার ব্যবহারের পরে সাবান জীবানুতে ভরে যায় যার মধ্যে ক্ষতিকর ভাইরাসও থাকে। সবচেয়ে বিপজ্জনক বিষয় হলো বেশিরভাগ মানুষই সাবান রাখে ভেজা পাত্রে। আর এই আর্দ্র অবস্থায় ব্যাকটেরিয়ার, ছত্রাক, ভাইস বেশি ছড়াই। সংক্রমণের ঝুঁকি থেকে দূরে থাকতে তরল সাবান ব্যবহার করুন।

ইয়ারফোন: ইয়ারফোন ব্যবহারের কারণে কানে ব্যাকটেরিয়ার বাড়তে পারে। ব্যায়ামের সময় এটি ব্যবহার করলে এর ঝুঁকি আরও বেশি, বিশেষ করে অতি তাপ ও আর্দ্রতায়। কারও সঙ্গে ইয়ারফোন শেয়ার করলে ব্যাকটেরিয়ায় সংক্রমিত হওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকুন। 

সূত্র: ব্রাইড সাইড

Leave A Reply

Your email address will not be published.