দুই মার্কিন পুলিশের বিরুদ্ধে কৃষ্ণাঙ্গ সেনা কর্মকর্তার মামলা

35

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মার্কিন সেনাবাহিনীর এক কৃষ্ণাঙ্গ লেফটেন্যান্ট। ভিডিওতে দেখা যায়, গাড়ি থামানোর সময় এই দুই পুলিশ তার দিকে বন্দুক তাক করেছে ও পেপার স্প্রে ছুড়েছে। গত ডিসেম্বরে ভার্জিনিয়ায় এমন ঘটনা ঘটেছে। বডিক্যামেরার ভিডিওফুটেজের সময় সেনাবাহিনীর সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট কারোন নাজারিও তার উর্দি পরছিলেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির বলা হয়, দুই পুলিশ কর্মকর্তা গাড়ি থামিয়ে তাকে বের হয়ে আসতে বললে তিনি বলেন, সত্যিকার অর্থে আমি বের হতে ভয় পাচ্ছি। জবাবে এক পুলিশ জানায়, আপনি বেরিয়ে আসেন।

পুলিশের অভিযোগ, তার গাড়ির লাইসেন্স প্লেট দেখা না যাওয়ার কারণে গাড়ি থামানো হয়েছে। কিন্তু ভিডিওতে তার টেমপোরারি প্লেট দেখা যাচ্ছিল।

এ সময় তাকে হাতকড়া পরিয়ে তার গাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। কেন তার বিরুদ্ধে বলপ্রয়োগ করা হচ্ছে জানতে চাইলে এক পুলিশ বলেন, আপনি সহযোগিতা করছেন না। পরবর্তী সময়ে কোনো অভিযোগ ছাড়াই তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ভার্জিনিয়ার নরফোকে মার্কিন ডিস্ট্রিক্ট আদালতে মামলাটি হয়েছে। আসামি করা হয়েছে উইন্ডসর পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তা জো গুটেরেজ ও ডেনিয়াল ক্রোকারকে। হামলা, অবৈধ তল্লাশি ও আটকের কারণে তার সাংবিধানিক অধিকার ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এ ঘটনায় উইন্ডসর পুলিশ বিভাগের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এমন এক সময় এই মামলার বিষয়টি সামনে এসেছে, যখন সংখ্যালঘুদের ওপর পুলিশের নৃশংসতা ও বর্ণবাদী আচরণের ওপর পর্যবেক্ষণ বাড়ানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবকের ঘাড়ে হাঁটু চেপে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চৌভিনের বিচার চলছে। এই ঘটনায় বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে সারাবিশ্ব উত্তাল হয়ে উঠেছিল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.