এনআইডি জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন

15

ঢাকা: একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র থাকায় নির্বাচন কমিশনের করা মামলায় জামিন পেয়েছেন জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান সাবরিনা আরিফ চৌধুরী। গত ২২ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনের দায়ের করা মামলায় ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন। তবে জামিন পেলেও কারাগারেই থাকতে হবে তাকে। কারণ, করোনা পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে অন্য মামলায় তিনি জামিন পাননি।

রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) ডা. সাবরিনার আইনজীবী প্রণব কান্তি ভৌমিক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গত ২২ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনের দায়ের করা মামলায় বিচারক ২০ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিনের আদেশ দেন। করোনা পরীক্ষা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগের মামলাটিতে জামিন না পাওয়ায় আপাতত কারামুক্তি পাচ্ছেন না তিনি।

এর আগে গত ৩০ আগস্ট বাড্ডা থানায় ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে মামলাটি করেন গুলশান থানা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ মমিন মিয়া।

প্রসঙ্গত, ডা. সাবরিনা চৌধুরী তথ্য জালিয়াতি করে দুই এলাকায় ভোটার এবং দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নিয়েছেন। তার দুটি এনআইডি সচল এবং দুটিতে ভিন্ন তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। একটিতে জন্ম তারিখ ২ ডিসেম্বর ১৯৭৮। অপরটিতে ২ ডিসেম্বর ১৯৮৩। এক্ষেত্রে বয়স পাঁচ বছর কমানো হয়েছে। দুটি এনআইডিতে স্বামীর নামও ভিন্ন। একাধিক স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা ব্যবহার করে ভোটার হন ডা. সাবরিনা। তার দুটি পরিচয়পত্রই অকার্যকর করা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.