সৈকতে বঙ্গবন্ধুর বালুর ভাস্কর্য

19

ঢাকা: কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্টে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর ‘বালু ভাস্কর্য’ ১৬ ডিসেম্বর দুপুরের দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রায় ৬ ফুট উচ্চতা ও ১৪ ফুট প্রশস্ত এ ভাস্কর্যটি এ যাবৎকালে বাংলাদেশে নির্মিত সবচেয়ে বড় বালুর ভাস্কর্য।

সেখানে দুটি ভাস্কর্য তৈরি করা হয়েছে। একটি বঙ্গবন্ধুর ফ্রি স্ট্যান্ডিং ভাস্কর্য। অপরটি রিলিফ ভাস্কর্য। সৈকতে ভ্রমণে আসা দর্শনার্থীরা এই ভাস্কর্য দেখে আনন্দিত হবে।

‘জাতির পিতার সম্মান রাখবো মোরা অম্লান’ এই প্রতিপাদ্যে স্থাপিত ভাস্কর্যটি আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এরপর প্রশাসনিকভাবে তা বিনষ্ট করে ফেলা হবে।

জেলা প্রশাসনের পরিকল্পনায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যটির নির্মাণে সার্বিক সহযোগিতা করেছে ‘ব্র্যান্ডিং কক্সবাজার’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান।

এ উপলক্ষে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী, নুরুল আবছার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, অ্যাডভোকেট তাপস রক্ষিত, অ্যাডভোকেট রনজিত দাশ, সিভিল সার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহম্মেদ বাহাদুর, ব্র্যান্ডিং কক্সবাজারের সমন্বয়ক ইশতিয়াক আহমেদ জয় ও ভাস্কর্য নির্মাণকারী টিম লিডার কামরুল ইসলাম শিপন।

বঙ্গবন্ধুর বালুর ভাস্কর্য উদ্বোধন অনুষ্ঠান

অনুষ্ঠানটির সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) কক্সবাজার প্রতিনিধি জাহেদ সরওয়ার সোহেল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.