অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সি সেবার নেটওয়ার্ক উবার কিনে নিচ্ছে স্টার্টআপ অরোরা!

366

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সেলফ-ড্রাইভিং বা স্ব-চালিত গাড়ির বিভাগটি বিক্রি করে দিচ্ছে অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সি সেবার নেটওয়ার্ক উবার। তাদের এ বিভাগটি কিনে নিচ্ছে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় আরেকটি গাড়িনির্ভর স্টার্টআপ অরোরা। এর ফলে চালু করার মাত্র পাঁচ বছরের মাথায় হস্তান্তর হচ্ছে উবারের ক্রমবর্ধমান ব্যবসাটি।

চুক্তি অনুসারে, সিলিকন ভ্যালি-ভিত্তিক স্টার্টআপটিতে ৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে উবার, বিনিময়ে অরোরার ২৬ শতাংশ শেয়ারের মালিক হবে তারা।

গাড়ির জন্য সফটওয়্যার তৈরি করে অরোরা। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী ক্রিস আর্মসন আগে গুগলের সেলফ-ড্রাইভিং প্রোগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

উবার এবং অরোরা জানিয়েছে, তারা সেলফ-ড্রাইভিং গাড়ি পরিচালনায় একটি কৌশলগত অংশীদারিত্ব চুক্তি করবে, যার মাধ্যমে অরোরার সহযোগিতায় উবার অ্যাপে স্ব-চালিত গাড়ির ব্যবসা পরিচালিত হবে।

২০১৫ সালে কার্নেগি মেলন ইউনিভার্সিটির ৪০ জন গবেষককে নিয়ে পিটসবার্গে নিজেদের সেলফ-ড্রাইভিং প্রোগাম শুরু করেছিল উবার। এর নাম দেয়া হয় উবার এটিজি (অ্যাডভান্সড টেকনোলজিস গ্রুপ)। একসময় এর কর্মী সংখ্যা দাঁড়ায় এক হাজারেরও বেশি।

২০১৪ সালের এক সাক্ষাৎকারে উবারের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাভিস কালানিক তাদের ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে এটিজি আবশ্যক বলে উল্লেখ করেছিলেন।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে সম্প্রতি ২৫ শতাংশ কর্মী ছাটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এখন সেলফ-ড্রাইভিং বিভাগ বিক্রির মাধ্যমে আগামী বছর বাড়তি খরচ কমানোর আশা করছে তারা।

২০২১ সালের প্রথম প্রান্তিকেই উবার-অরোরা মধ্যে চুক্তি হওয়ার কথা। সেই মতে, অরোরার পরিচালনা পর্ষদে যোগ দেবেন উবার সিইও দারা খোসরোশাহি। এছাড়া, উবার এটিজির বেশিরভাগ কর্মীর সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করতে পারে অরোরা।

উবারের চুক্তির ফলে জাপানি গাড়িনির্মাতা টয়োটার সঙ্গেও যোগসূত্র তৈরি হচ্ছে অরোরার। উবার এটিজিতে বিনিয়োগ রয়েছে টয়োটার। অরোরা স্ব-চালিত গাড়ির সেন্সর ও সফটওয়্যার তৈরি করলেও গাড়িটি তৈরির জন্যে অংশীদার দরকার। তাদের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী গুগলের ওয়েমো, কিংবা ক্রুজ ও আর্গো এআই’র মতো প্রতিষ্ঠানগুলো আগেই গাড়িনির্মাতাদের সঙ্গে এধরনের চুক্তি করে ফেলেছে। সেক্ষেত্রে টয়োটার সঙ্গে যুক্ত হলে ব্যবসা আরও একধাপ এগিয়ে যাবে বলে আশা করছে অরোরা।

তবে এ বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক কোনও মন্তব্য করেনি টয়োটা কর্তৃপক্ষ।

তথ্যসূত্র: সিএনএন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.