মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্রকারীদের উন্মাদনা বদ্ধ করুন

0

Gulsan, 01.07.2016-10সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, অষ্ট্রিয়া প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী, লেখক, সাংবাদিক এম. নজরুল ইসলাম এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ঢাকার কূটনৈতিকপাড়া গুলশানের স্প্যানিশ রেস্টুরেন্টে হলি আর্টিজান বেকারিতে ১ জুলাই, শুক্রবার রাতে ঘটে যাওয়া ঘটনাটি বাংলাদেশের ইতিহাসে নিষ্ঠুরতম জঙ্গি হামলা। জঙ্গিদের বোমাবর্ষণ ও গুলিতে দু’জন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ২০ জন পুলিশসহ ৫০ জনের অধিক মানুষ। জঙ্গিরা ২০ জনকে জবাই করে হত্যা করেছে। ২ জুলাই ভোরে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে নৌবাহিনী, বিমান বাহিনী, বিজিবি, যার্ব, পুলিশ, সোয়াত, ফায়ার সার্ভিস এবং সিভিল ডিফেন্সের সমন্বয়ে কমান্ডো অভিযান ‘অপারেশন থান্ডারবোল্ট’ পরিচালনার মাধ্যমে সংকট নিরসন হয়। অভিযানে ৬ জন জঙ্গি নিহত হয়। ১ জন জঙ্গিকে জীবিত গ্রেফতার করা হয়। ১৩ জন জিম্মিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় শাহাদতবরণকারী পুলিশ কর্মকর্তা দ্বয় ও দেশি-বিদেশী নাগরিকদের আত্মার শান্তি কামনা করছি। এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।’
তিনি বলেন, ‘এই বর্বর ঘটনায় প্রবাসে আমরা গভীরভাবে মর্মাহত হয়েছি। ধর্ম ও মানবতা বিরোধী এই জঙ্গি হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।
Gulsan, 01.07.2016-6বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের উত্থান চারদলীয় জোট সরকারের আমলে। তখন সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় দেশে জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদের ভয়াবহ বিস্তার ঘটেছিল। ঐ পৃষ্ঠপোষকতাকারীরা যেনতেনভাবে রাষ্ট্রিয় ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য বিগত দিনগুলোতে জ্বালাও-পুড়াও, হত্যা, সন্ত্রস অনেক করেছে। কিন্তু গণতান্ত্রিক সরকারকে তারা ফেলে দিতে পারেনি। জঙ্গি কায়দায় নানা কৌশলে চেষ্টা তাদের অব্যাহত আছে। এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের বিচারপ্রক্রিয়ায় পাকিস্তানপ্রেমিরা প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠেছে।
মোট কথা আমার মনে হয়, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক ও অসাম্প্রদায়িক সরকারের পতন ঘটানোর চেষ্টারতরাই স্প্যানিশ রেস্টুরেন্টে এই ঘটনা ঘটিয়েছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘ন্যাক্কারজনক ও নৃশংস এই হামলা প্রতিরোধে অত্যান্ত বিপজ্জনক অবস্থায়ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা পেশাদারিত্বের সঙ্গে যে সাহসিকতা ও দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন এই জন্য দেশের ইতিহাসে তাঁদের এই অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে। শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা নিয়ন্ত্রণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সময়োচিত, সুচিন্তিত দিক-নির্দেশনা ও বলিষ্ঠ পদক্ষেপের কারণে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। দেশের মানুষের পাশাপাশি প্রবাসে আমাদের মধ্যেও ফিরে আসে স্বস্তি। দেশের এই ভয়ঙ্কর বিপদ মোকাবিলা করায় মাননীয় প্রধনমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অনেক অনেক অভিনন্দন। সেই সাথে তাঁর কাছে অনুরোধ জঙ্গি সন্ত্রাসের মাধ্যমে দেশব্যাপী অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করে নির্বাচিত সরকার পতনের ষড়যন্ত্রকারীদের উন্মাদনা যেকোনভাবে বদ্ধ করুন।’

Share.

About Author

Leave A Reply

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com